Class 6 science assignment Answer (4th week) Solution

If you are looking for the answer to the fourth-grade class 6 science assignment then you are in the right place. All the questions of class 6 science will be answered in this article. You will get answers to all the questions of science from here.

Due to the coronavirus epidemic, this year Bangladesh has made it a rule to make assignments as an alternative to the annual examination from sixth to ninth class and give them to their respective schools. In its continuation, I have attached the answers to the class 6 questions in this article.

 Class 6 fourth week science assignment questions

Assignments have been given to the students as a syllabus in several chapters of science subjects and they have been asked to complete the assignment by writing it before a certain time. To submit to the school teacher. Remember that you must read the assignment syllabus and then answer the assignment.

Class 6 science assignment Answer (4th week)

এখানে উদ্দীপকে একটি জলন্ত মোমবাতি ও তিনটি বরফখণ্ড দেওয়া আছে ।
উক্ত উদ্দীপকে থেকে নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর করতে হবে ।

বিদ্যুৎ পরিবাহী ও অপরিবাহী পদার্থের নাম লেখ?

উত্তরঃ যে সকল পদার্থের মধ্য দিয়ে বিদ্যুৎ সহজেই চলাচল করতে পারে তাকে বিদ্যুৎ পরিবাহী পদার্থ বলে । যেমনঃ লোহা, তামা ইত্যাদি ।
অপরিবাহীঃ যে সকল পদার্থের মধ্য দিয়ে বিদ্যুৎ পরিবহন হতে পারে না তাকে বিদ্যুৎ অপরিবাহী পদার্থ বলে । যেমনঃ সিলিকন জার্মেনিয়াম ইত্যাদি

প্রশ্নঃ বিদ্যুৎ পরিবহন এর তামার তার ব্যবহারের কারণ কি?

উত্তরঃ তাপমাত্রার ব্যবহারের কারণ হলোঃ তামার তার বিদ্যুৎ সুপরিবাহী । এর মধ্য দিয়ে বিদ্যুৎ খুব সহজে চলাচল করতে পারে এবং তামার তারের রোধ অনেক কম তাই কোনো রকম বাধা ছাড়াই ইলেকট্রন প্রবাহিত হয় । এজন্য বিদ্যুৎ পরিবহন এর তামার তার ব্যবহার করা হয় ।

প্রশ্নঃ মোম গলে পড়ার পরবর্তী অবস্থান ব্যাখ্যা করো?

উত্তরঃ মোম যখন জ্বলন্ত অবস্থায় থাকে তখন মোমের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে নিচে পড়ে এবং কিছু পরিমাণ আগুনে পুড়ে কার্বন-ডাই-অক্সাইড পরিণত হয় । কিন্তু যেসব নিচে পড়ে সেগুলো থেকে তাপ বিকরিত হয়ে যখন ঠান্ডা হয় তখন আবার কঠিন পদার্থ পরিণত হয় ।
অর্থাৎ মোম যখন তাপ দেওয়া হয় তখন মোম প্রথমে তরলে পরিণত হবে । আবার অতিরিক্ত তাপে মোম পুরে গ্যাসে পরিণত হয় । আবার মোন থেকে তাপ বিকরিত বা তাপ বের করে নিলে আবার মম কঠিনে পরিণত হয় ।
উপরোক্ত, আলোচনা থেকে বলা যায় মোম গলে নিচে পড়লে সেগুলো আবার কঠিন মম পরিণত হবে ।

মোম এবং বরফের গলনাঙ্ক ও হিমাংক কি একই?

উত্তরঃ উপরের চিত্রে মোম এবং বরফ আছে । মোম এবং বরফের গলনাঙ্ক ও হিমাংক একই নয় । আমরা জানি 0° সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় বরফ গলতে থাকে এবং তার নিচে যদি আসে তাহলে পানি বরফে পরিণত হয় । অর্থাৎ পানি বরফে পরিণত হওয়াকে পানির হিমাঙ্ক বলে । ১০০ ডিগ্রি তাপমাত্রা নিচে মোম কঠিন হতে শুরু করে ।মোমবাতির গলনাঙ্ক হলো 100 ডিগ্রী তাপমাত্রায় 100 ডিগ্রী তাপমাত্রায় মম গলতে শুরু করে এবং এটাই  তার গলনাঙ্ক ।

উপরোক্ত আলোচনা থেকে বলা যায় মম এবং বরফের গলনাঙ্ক একই নয় ।

মূল্যায়ন নির্দেশক ষষ্ঠ শ্রেণীর চতুর্থ সপ্তাহের বিজ্ঞান এসাইনমেন্টের

উত্তর প্রদানে যা যা করতে হবে:

  • নির্ভুল তথ্য ও যুক্তি সম্মত ব্যাখ্যা প্রদান করতে হবে।
  • প্রশ্নের চাহিদা অনুযায়ী উত্তর প্রদানের সক্ষমতা দেখাতে হবে।
  • প্রশ্নের অনুধাবন ক্ষমতা প্রয়োগ করতে হবে।
  • বিষয়বস্তুর গভীরতা থাকতে হবে।
  • প্রয়ােগ ক্ষমতা থাকতে হবে।